জীবন যুদ্ধ
জীবন যুদ্ধ শ্যামলী বালা (বিশ্বাস) (কলকাতা থেকে) জীবন মানেই যুদ্ধ প্রতি পদে প্রতিক্ষনে সৈনিকেরা যুদ্ধ করে পর দেশের সনে। রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে ফেরে অনেক ভবঘুরে নেই পেটে ভাত যেখানে রাত সেখানে ঘুরে। বাসে ট্রেনে ভিখারী ভিখ মাগে পেটের ক্ষুধার তরে। অন্ধ, খোঁড়া, গরীব, দুঃখী দ্বারে দ্বারে ঘোরে। দেশ দেশান্তে পাড়ি দেয় রুটি রুজির তরে। আত্মীয় […]
জীবন যুদ্ধ শ্যামলী বালা (বিশ্বাস) (কলকাতা থেকে) জীবন মানেই যুদ্ধ প্রতি পদে প্রতিক্ষনে সৈনিকেরা যুদ্ধ করে পর দেশের সনে। রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে ফেরে অনেক ভবঘুরে নেই পেটে ভাত যেখানে রাত সেখানে ঘুরে। বাসে ট্রেনে ভিখারী ভিখ মাগে পেটের ক্ষুধার তরে। অন্ধ, খোঁড়া, গরীব, দুঃখী দ্বারে দ্বারে ঘোরে। দেশ দেশান্তে পাড়ি দেয় রুটি রুজির তরে। আত্মীয় স্বজন বন্ধু বান্ধব সকল সম্পর্ক ছেড়ে। পুলিশ, মন্ত্রী সান্ত্রী সেপাই ডাঃ প্রফেসর প্রতি ক্ষণে জীবন যুদ্ধে আছে তো মগন। যোগী, রোগী,ভোগী, ত্যাগী,পথ গণিকা, জীবন সংগ্রামে লিপ্ত হয়, না করে ভণিতা। ভ্রূণ থেকে মৃত্যু পর্যন্ত কঠিন লড়াই চলে। যোগ্যতম সেই বাঁচে অক্ষম যায় চলে। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় যুদ্ধ সব খানে। উদয় অস্ত জীবন যুদ্ধ রমনীরা জানে। সন্তান জন্মদান প্রতি পালন মানুষ করিবারে মাথার ঘাম পায়ে ফেলে অর্থ কামাবারে। জনক জননী হয় মরিয়া সন্তান সুখ লাগি সুখ দুঃখ রাখে চেপে বছর বছর জাগি। প্ৰেম ভালোবাসা আশা আকাঙ্খায় দিবানিশি দ্বন্দ পৃথিবীতে বেচেঁ থাকা কঠিন লড়াই নেই সন্দেহ। অতিমারির কবল থেকে বাঁচতে রেখেছি সবই বন্ধ। আগে তো প্রাণ বাঁচুক পরে খুঁজে পাওয়া যাবে ছন্দ।
Previousভালোবাসার নীড়
Nextবর্ষণ মুখর দিনে কলমে শ্যামলী বালা (বিশ্বাস)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *